করোনা পজিটিভ পরিবারে উপহার পাঠাল জেলা প্রশাসন

অবশ্যই পরুন

একদিকে করোনা আক্রান্ত হয়ে বাবা ভর্তি রয়েছেন বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে। অন্যদিকে করোনা আক্রান্ত হয়ে দুই শিশুসহ মা চিকিৎসা নিচ্ছেন বাসায় থেকে। জীবনের এমন ঘোর বিপদে ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে আক্রান্ত দুই শিশু। ভীত তার বাবা-মাও।

এমন দুঃসময়ে রোববার (৩ মে) বিকেলে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরিবারের সদস্যদের জন্য পাঠানো হয় শিশুখাদ্যসহ পবিত্র রমজান উপলক্ষে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য এবং বিভিন্ন উপহারসামগ্রী। এসময় জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহর পক্ষ থেকে পরিবারের সব সদস্যকে সাহস দেওয়া হয়। যেকোনো পরিস্থিতিতে ওই পরিবারের পাশে জেলা প্রশাসন রয়েছে বলে আশ্বাস দেওয়া হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বরগুনা জেনারেল হাসপাতাল থেকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে, আবার সরাসরি ওই বাসায় উপস্থিত হয়ে চিকিৎসা দিচ্ছেন বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসকসহ স্বাস্থ্যকর্মীরা।

বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিট ইনচার্জ শাহনাজ পারভিন বলেন, ‘ওই পরিবারের গৃহকর্তা বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তিনি অনেকটাই সুস্থের দিকে। দু’বারই তার ফলোআপ টেস্টে নেগেটিভ এসেছে। আশা করি দু’একদিনে তিনি ছাড়পত্র পাবেন। তবে ওই পরিবারের দুই শিশুসহ মায়ের ফলোআপ টেস্টের ফলাফল এখনও পাওয়া যায়নি।’

এ বিষয়ে বরগুনার জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ বলেন, ‘আক্রান্ত পরিবারের আশেপাশের পরিবারসমূহকে সচেতন করা হয়েছে, যাতে তারা যথাযথ স্বাস্থবিধি মেনে চলেন এবং আক্রান্ত পরিবারের প্রতি সংবেদনশীল থাকেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা রোগীদের সুস্থ হয়ে ওঠার পরিসংখ্যান সন্তোষজনক। শতকরা ১০০ জনই এখানে সুস্থ হচ্ছেন। সেই হিসেবে আমরা আশাবাদী, বরগুনায় করোনায় হয়তো খুব বেশি প্রাণহানি ঘটবে না।

সম্পর্কিত সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

পিরোজপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে কু*পি*য়ে যুবকের পা বি*চ্ছিন্ন

পিরোজপুর সদর উপজেলার মুলগ্রাম এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গোলাম রসুল খান (৪৫) নামের এক যুবকের পা কুপিয়ে পা...