গৌরনদীতে শ্রণিকক্ষে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে কথা বলায় শিক্ষককে সমস্ত কার্যক্রম থেকে বিরত

অবশ্যই পরুন

শ্রেনি কক্ষে পাঠদানের সময় ইসলাম সম্পর্কে কুরুচিপূর্ন মন্তব্য করার অভিযোগে মেদাকুল মাধ্যমিক বিদ্যালযের এক সহকারী শিক্ষককে জেল হাজতে প্রেরণ করে বরিশালের গৌরনদী মডেল থানা পুলিশ। এর রেশ কাটতে না কাটতে এক সপ্তাহের ব্যবধানে গত শনিবার বার্থী তাঁরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক অঞ্জণ সরকার ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে কথা বলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত রোববার ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে কথা বলার অভিযোগে স্কুল কর্তৃপক্ষ ওই সহকারী শিক্ষককে কারণ দর্শানো নোটিশসহ স্কুলের সমস্ত কার্যক্রম থেকে বিরত রেখেছেন।
শিক্ষার্থীরা জানান, শনিবার বার্থী তাঁরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক অঞ্জণ সরকার ৭ম শ্রেণির সামজিক বিজ্ঞান বিষয়ে পাঠদানের সময় শ্রেনি কক্ষে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে কথা বলেন। স্কুল ছুটির পরে শিক্ষর্থীরা বিষয়টি অভিভাবক ও প্রধান শিক্ষক্ষকসহ অন্যান্য শিক্ষকদের কাছে বিষয়টি জানায়।
বার্থী তাঁরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বিএম ইদ্রিস আলী এ প্রসঙ্গে বলেন, আমরা ঘটনার পরের দিন ১৫ মার্চ সহকারী শিক্ষক অঞ্জণ সরকারকে কেন বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে না তা তিন দিনের মধ্যে লিখিত ভাবে জানানোর জন্য কারণ দর্শানো নোটিশসহ স্কুলের সমস্ত কার্যক্রম থেকে সাময়িক ভাবে বিরত রেখেছি। কারণ দর্শানো নোটিশের জবাব পাওয়ার পর স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি সভা করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সম্পর্কিত সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

কালকিনিতে বিষাক্ত সাপের ছোবলে মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু

মাদারীপুরের কালকিনিতে মাটির গর্তের মধ্যে থেকে মাছরাঙা পাখির ছানা ধরতে গিয়ে বিষাক্ত সাপের ছোবলে আবু হুমাইদ (১১) নামে এক...