টরকী বন্দরে হাজারো লোকের জমায়েত সরকারী নির্দেশ অমান্য করে

অবশ্যই পরুন

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার টরকী বন্দরে  প্রতি মঙ্গলবার সাপ্তাহিক হাটের দিন। সম্প্রতি  টরকী বন্দরে করোনা  রোগী  শনাক্ত হয়  হওয়ায় টরকী বন্দরে (বেকিনগর) এলাকায় গতকাল ৪০ টি পরিবার লকডাউন করেছে  গৌরনদী উপজেলা প্রশাসন ।
কিন্তু ১৪ এপ্রিল মঙ্গলবারের দৃশ্যটা ছিল ভিন্ন। সকাল থেকে বিভিন্ন গ্রাম অঞ্চলের মানুষদের উপচে পড়া ভিড় ছিল চোখে পড়ার মত। তরকারি বাজার, মাছ বাজার, মুরগি বাজার, ফল বাজার,  লঞ্চঘাট টলারঘাট , সদর রোড, সহ অন্যান্য বাজারে সরেজমিনে প্রত্যেকটি এলাকায় শত শত মানুষের ভিড় লক্ষ করা যায়। এ যেন গৌরনদী উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের মাঝে এক অসচেতনতার নির্মম দৃশ্য।  প্রশাসনের নিরাপত্তা বাহিনীর টহল একটু দেরিতে হলেও চোখে দেখা গেছে। তারা মাইকিং করে কিংবা বুঝিয়ে শুনিয়ে ফেরৎ পাঠানোর চেষ্টা করেছেন। কিন্তু কে শোনে কার কথা, হাটে আগত মানুষেরা যে যার মত অসচেতন অবস্থায় গা ঘেষাঘেষি করে বাজার সদাই করছেন। করোনা আতঙ্ক কারো চোখেমুখে লক্ষ্য করা যায়নি। ছিলনা তাদের একে অপরের মধ্যে এক মিটার দূরত্ব।
মজার বিষয়টি হলো এদের মধ্যে আবার অনেকেই এসেছেন হাট বাজার ঘুরে দেখতে। বিনা কারণে ঘুরে বেড়ানো এরকম একজনের  সাথে এ প্রতিবেদকের কথা হলে তিনি জানান তারা একই গ্রামের তেরো জন মানুষ হাটে এসেছেন। এদের মধ্যে ছয়জন তাদের বাজার-সদাই করেছেন, বাকি সাতজন তাদের সাথে হাটে এসেছেন নিছক ছয়জনকে সঙ্গ দেয়ার জন্য।
এরকম ১০ থেকে ১৫ জন মানুষের কাছে জানতে চাইলে তারা বিরূপ মন্তব্য করেন। আবার কিছু ব্যক্তিকে দেখা গেছে তারা সঠিক নিয়ম-শৃঙ্খলা মেনে দূরত্ব বজায় রেখে সচেতন অবস্থায় বাজার সদাই করছেন। মজার আরেকটি বিষয় হলো এদের মধ্যে ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ লোকের মুখে এখনো মাস্ক ব্যবহার করতে দেখা যায়নি।

এ বিষয়ে সচেতন মহলের পক্ষে করোনা ভাইরাস  থেকে বাঁচতে হলে আমাদেরকে আরও সচেতন ভাবে চলাফেরা করতে হবে।  অসতর্কভাবে ঘোরাফেরা মোটেই ঠিক নয়। দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের আরো দায়িত্বশীল আচরণ করতে হবে, যাতে করে তারা আইন মান্য করতে বাধ্য হয়।

সম্পর্কিত সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

ডাসারে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু

মাদারীপুরের ডাসার উপজেলার কাজীবাকাই দক্ষিণ মাইজপাড়া পানিতে পড়ে দুই চাচাতো বোনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১ টার দিকে উপজেলার...