ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘মিগজাউম’, বন্দরে ২ নম্বর সতর্কতা

অবশ্যই পরুন

স্টাফ রিপোর্টারঃ দক্ষিণ পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে ক্রমেই ফুঁসছে ঘূর্ণিঝড় মিগজাউম। সবশেষ ৬ ঘণ্টায় তা পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে শুরু করেছে।

এটি আরও শক্তি সঞ্চয় করে পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে শুরু করছে। ফলে এটি ধীরে ধীরে আরও গভীর নিম্নচাপে রূপান্তরিত হতে চলেছে আগামী ১২ ঘণ্টায়, যা ঘূর্ণিঝড় মিগজাউমে রূপ নেবে। ৩ ডিসেম্বরের মধ্যে এটি রূপ নেবে মিগজাউমে।

আপাতত পূর্বাভাস বলছে, ৫ ডিসেম্বর দুপুরে ঘূর্ণিঝড়টি আঘাত হানতে পারে। শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ১৫৬৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ১৪৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমে, পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ১৪৪৫ কিলোমিটার দক্ষিণও দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ১৫১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল।

এটি আরও পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও ঘনীভূত হতে পারে। গভীর নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৮ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৫০ কিলোমিটার যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

গভীর নিম্নচাপ কেন্দ্রের কাছাকাছি এলাকায় সাগর উত্তাল রয়েছে। কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, পায়রা ও মোংলা সমুদ্ররকে ১ নম্বর দূরবর্তী সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

গত ১৭ নভেম্বর বিকেলে বাংলাদেশের উপকূল অতিক্রম করে ঘূর্ণিঝড় মিধিলি। মিধিলির তাণ্ডবে সারাদেশে প্রাণ হারান ৭ জন। এছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে ঝড়ো হাওয়ার কারণে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়।

এর আগে গত অক্টোবরে বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড় হামুনের সৃষ্টি হয়। এটি ২৪ অক্টোবর কুতুবদিয়ার কাছ দিয়ে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার উপকূল অতিক্রম করে।

সম্পর্কিত সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

আগৈলঝাড়ায় শোভা ছড়াচ্ছে বসন্তের শিমুল ফুলের সৌন্দর্য

শীত বিদায় হয়েছে প্রকৃতি থেকে। প্রকৃতিতে চলছে বসন্ত। এরই মাঝে ফুটেছে নানান রং এর ফুল। শিমুল গাছে তাকালেই দেখা...