পিরোজপুরে বাড়ির সীমানার দ্বন্দ্বে প্রাণ গেল একজনের

অবশ্যই পরুন

পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলায় বাড়ির সীমানা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে একজনকে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। এ সময় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত হয়েছেন নিহতের চার স্বজনও।
শনিবার দুপুরে বালিপাড়া ইউপির কলারোন জোমাদ্দার হাট এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে।

নিহত আব্দুল সালাম জমাদ্দার কলারোন গ্রামের আব্দুল আজিজ জমাদ্দারের ছেলে এবং কলারোন এলাকার সন্ন্যাসী খেয়াঘাটের ইজারাদার।

আহতরা হলেন নিহত সালাম জমাদ্দারের দুই ছেলে আল-আমিন জমাদ্দার ও আবু বক্কর জমাদ্দার, ভাই মিজান জমাদ্দার ও ভাইয়ের ছেলে জসিম জমাদ্দার। তারা পিরোজপুর জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

নিহতের ছেলে আল আমিন অভিযোগে বলেন, তার বাবা সালাম জমাদ্দারের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামের বাবুল জমাদ্দারের জমি নিয়ে বিরোধ ছিল। শনিবার বেলা ১১টার দিকে আমি বাবাকে নিয়ে জমাদ্দারহাটের দিকে যাওয়ার সময় হাট সংলগ্ন কালভার্টের কাছে বাবুল জমাদ্দারের নেতৃত্বে ১৫ থেকে ২০ জন আমাদের ওপর হামলা চালায়।

আল আমিন বলেন, এ সময় তাদের দায়ে কোপ ও লাঠির আঘাতে আমার বাবা সালাম জমাদ্দার গুরুতর জখম হন এবং তিনিসহ তার ভাই, চাচা ও চাচাতো ভাই আহত হন। পিরোজপুরে হাসপাতালে নেয়ার পরে দুপুর ১টার দিকে বাবার মৃত্যু হয়।

ইন্দুরকানী থানার ওসি হাবিবুর রহমান বলেন, বাড়ির সীমানা নিয়ে সালাম জমাদ্দার ও বাবুল জমাদ্দারদের মধ্যে বিরোধ ছিল। সকালে প্রথম দফায় তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে বাবুল জমাদ্দার গ্রুপের হামলায় সালাম জমাদ্দার গুরুতর আহত হন। হাসপাতালে নেয়ার পর তার মৃত্যু হয়।

তিনি আরো বলেন, এ ঘটনায় অহিদুজ্জামান নামে এক যুবককে আটক করা হয়েছে। অপরাধীদের দ্রুত আটক করে আইনের আওতায় আনা হবে।

সম্পর্কিত সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

ডাসারে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু

মাদারীপুরের ডাসার উপজেলার কাজীবাকাই দক্ষিণ মাইজপাড়া পানিতে পড়ে দুই চাচাতো বোনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১ টার দিকে উপজেলার...