পুকুরে মাছ ধরা নিয়ে ভাতিজার হাতে চাচা খুন

অবশ্যই পরুন

বরিশাল সদর উপজেলার শোলনা গ্রামের তুলাতলা এলাকায় আবুল হাসানাত তৈমুর (৪২) নামে এক ব্যক্তিকে তার ভাতিজা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) রাতে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

এর আগে বিকেলে পুকুরে মাছ ধরা নিয়ে বিরোধের জের ধরে আবুল হাসানাত তৈমুরকে নিজ বাড়িতে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়।

তিনি সদর উপজেলার সোলনা গ্রামের তুলাতলা এলাকার ঘোষের বাড়ির মৃত হাতেম আলী হাওলাদারের ছেলে। অভিযুক্ত রুম্মান নিহত তৈমুরের বড় ভাই অ্যাডভোকেট আহসান হাবিবের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, আবুল হাসানাত তৈমুর শোলনা গ্রামে পৈত্রিক বাড়িতে পরিবার নিয়ে থাকেন। তার বড় ভাই অ্যাডভোকেট আহসান হাবিব থাকেন বরিশাল নগরীতে। ২/৩ দিন আগে তৈমুর বাড়ির পুকুরে মাছ ধরেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে আহসান হাবিবের ছেলে রুম্মান বাড়িতে গিয়ে মাছ ধরা নিয়ে চাচার সঙ্গে ঝগড়া করে নগরীতে ফিরে আসেন। এরপর বিকেল পৌনে ৫টার দিকে দুই বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে রুম্মান ফের বাড়িতে যান। পুনরায় চাচার সঙ্গে ঝগড়ার একপর্যায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন। এরপর রুম্মান ও তার দুই বন্ধু মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যান। স্থানীয়রা তৈমুরকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে রাত সাড়ে ৮টার দিকে তৈমুর মারা যান।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের বিমান বন্দর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদ বিন আলম জানান, পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেছেন। ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের আটকে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে।

সম্পর্কিত সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

কালকিনিতে বিষাক্ত সাপের ছোবলে মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু

মাদারীপুরের কালকিনিতে মাটির গর্তের মধ্যে থেকে মাছরাঙা পাখির ছানা ধরতে গিয়ে বিষাক্ত সাপের ছোবলে আবু হুমাইদ (১১) নামে এক...