মেহেন্দিগঞ্জে করোনার ভয়ে লাশ রেখে পালালো স্বজনেরা, দাফন করল পুলিশ

অবশ্যই পরুন

বরিশালে করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া এক যুবকের লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায় স্বজনেরা। মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার উলানিয়া গ্রামের ৩২ বছর বয়সী ওই যুবক রোববার বিকেলে শের-ই বাংলা মেডিকেলের করোনা ওয়ার্ডে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যু আগ পর্যন্ত স্বজনেরা হাসপাতালে ঘোরাঘুরি করলেও পরে আর তাদের খোঁজ করে পাওয়া যায়নি। বিষয়টি কোতয়ালি থানা পুলিশ নিশ্চিত হয়ে একদিন পরে সোমবার দুপুরে ওই যুবকের লাশ উদ্ধারে দাফন দিয়েছে। উপ-পরিদর্শক (এসআই) আরাফাত হাসানের নেতৃত্বে একটি টিম বিকেলে লাশটি শহরের রুপাতলীতে দাফন করেন।

হাসাপাতাল ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে- বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার সুলাতানী গ্রামের বাসিন্দা ২৭ বছর বয়সী যুবক গত ১৭ এপ্রিল জ্বর, সর্দি ও কাশি নিয়ে হাসপাতালের সার্জারি ইউনিট-৩ এ ভর্তি হন। পরে উপসর্গে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে তাকে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেল সাড়ে ৫টায় তার মৃত্যু হয়েছে। মৃত যুবক করোনা আক্রান্ত ছিলেন কী না তা নিশ্চিত হতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নমুনা সংগ্রহ করলেও ভয়ে আগেই পালিয়ে গেছে স্বজনেরা।

কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম বরিশালটাইমসকে জানান, যুবকের লাশ হাসপাতালে পড়ে থাকার খবর পেয়ে এসআই আরাফাত হাসানকে উদ্ধার করে দাফন দেওয়া নির্দেশ দেওয়া হয়। সোমবার দুপুরে তিনি লাশটি উদ্ধার করে গোসল ও যানাজা নামাজ শেষে রুপাতলী এলাকার আঞ্জুমান মফিদুল গোরস্থানে দাফন দেওয়া হয়েছে।

সম্পর্কিত সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

ডাসারে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু

মাদারীপুরের ডাসার উপজেলার কাজীবাকাই দক্ষিণ মাইজপাড়া পানিতে পড়ে দুই চাচাতো বোনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১ টার দিকে উপজেলার...