বরিশালে ন্যূনতম সময়ে মৃতদের নমুনা নিয়ে দাফনের নির্দেশনা

অবশ্যই পরুন

অবশেষে সভা করে বরিশাল মহানগরসহ জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার উপসর্গ নিয়ে মৃত ব্যক্তিদের নমুনা সংগ্রহের জন্য সিভিল সার্জনকে বিশেষ টিম উপস্থিত রাখার নির্দেশনা দিয়েছে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ জেলা কমিটি। একইসঙ্গে ন্যূনতম সময়ে মৃত ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে দাফনের নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে।

বরিশাল জেলা প্রশাসকের অফিস কক্ষে জেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সব সদস্যের সঙ্গে ভার্চ্যুয়াল ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। বুধবার (১০ জুন) রাতে জেলা প্রশাসনের মিডিয়া সেল বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

জানা গেছে, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ জেলা কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক এস, এম, অজিয়র রহমানের সভাপতিত্বে ভিডিও কনফারেন্সে সংযুক্ত ছিলেন শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের পরিচালক ডা. বাকির হোসেন, সিভিল সার্জন ডা. মনোয়ার হোসেন, বরিশাল সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মতিউর রহমানসহ জেলা ও মহানগরের দায়িত্বে থাকা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা।

সভায় বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা শেষে সবার মতামতের ভিত্তিতে কয়েকটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সিদ্ধান্তগুলোর মধ্যে রয়েছে- নমুনা সংগ্রহ ও করোনা ভাইরাস পরীক্ষার ব্যবস্থাপনা সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনের নিমিত্তে জেলার সিভিল সার্জন সিটি করপোরেশন, বিভাগীয় পুলিশ হাসপাতাল এবং শেবাচিম হাসপাতালের সঙ্গে সমন্বয় করবেন। বরিশাল নগরের অভ্যন্তরে নমুনা সংগ্রহের ক্ষেত্রে এ চারটি প্রতিষ্ঠান যার যার সাধ্য মতো কাজ করবে। এক্ষেত্রে তারা বিদ্যমান জনবলের পাশাপাশি উপযুক্ত প্রশিক্ষিত ভলান্টিয়ার নিয়োগ করতে পারবে।

বরিশাল বিভাগীয় পুলিশ হাসপাতাল নমুনা সংগ্রহের ক্ষেত্রে সদর হাসপাতাল ও শেবাচিম হাসপাতালের সহায়তার পাশাপাশি নিজস্ব উদ্যোগে নমুনা সংগ্রহ করে শেবাচিম ল্যাবে পাঠাবেন অথবা সিভিল সার্জনের মাধ্যমে আইইডিসিআরে পাঠাতে পারবে। তবে তাদের সক্ষমতা অর্জনের আগ পর্যন্ত সিভিল সার্জন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।

সিভিল সার্জন বরিশাল নগরের অভ্যন্তরে নমুনা সংগ্রহের কার্যক্রম বাড়ানোর জন্য সদর হাসপাতালে নমুনা সংগ্রহের বুথ চালু করবেন। নগরসহ বরিশাল জেলায় উপসর্গ নিয়ে মৃত ব্যক্তিদের নমুনা সংগ্রহের জন্য সিভিল সার্জন বিশেষ টিম উপস্থিত রাখবেন এবং ন্যূনতম সময়ে মৃত ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে দাফনের নির্দেশ দেবেন।

শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের পাশাপাশি উপসর্গ নিয়ে উপস্থিত রোগীদের ‘ফ্লু কর্নারের’ পরামর্শ নিয়ে তাদের নমুনা সংগ্রহের ব্যবস্থা অব্যাহত রাখা হবে। বরিশাল সিটি করপোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগ মহানগরের অভ্যন্তরে আগের মতো নমুনা সংগ্রহের সহযোগিতা কার্যক্রম অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। নমুনা সংগ্রহের পর সেটি যত দ্রুত সম্ভব ল্যাবে পাঠানোর জন্য সিভিল সার্জনকে সভায় অনুরোধ করা হয়।

সভার শেষে জেলা প্রশাসক স্বাস্থ্য বিভাগের সব নির্দেশনা বাস্তবায়নসহ বর্তমান পরিস্থিতিতে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব রোধকল্পে পারস্পরিক সহযোগিতা করার জন্য কনফারেন্সে সংযুক্ত সবার প্রতি অনুরোধ জানান।

সম্পর্কিত সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

কুমিল্লাকে উড়িয়ে প্রথম শিরোপা জয় বরিশালের

অবশেষে বিপিএলের শিরোপা জয়ের স্বাদ পেলো বরিশাল। এর আগে তিনবার ফাইনাল খেললেও শিরোপা ছুঁতে পারেনি দলটি। বিপিএলের দশম আসরের...