বরিশাল মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাকে শাস্তিমূলক বদলি

অবশ্যই পরুন

বরিশাল মাদক নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের বিতর্কিত অতিরিক্ত পরিচালক এ এ এম হাফিজুর রহমানকে বদলী করা হয়েছে। মাদক নিয়ন্ত্রন অধিপ্তরের নীচে মাদক বিক্রির গুরুতর অভিযোগ এবং দায়িত্ব পালনরত ক্যামেরাপার্সনের উপর নগ্ন হামলার প্রতিবাদে শনিবার থেকেই তার বিচারের দাবিতে সাংবাদিকরা সোচ্চার ছিল। রোববার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের মাদক নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর এক আদেশে তাকে বরিশাল থেকে ময়মনসিয়হে বদলী করে।
যাদের মাদক নিয়ন্ত্রন করার কথা, সেই মাদক নিয়ন্ত্রন অফিসেই মাদক বিক্রি হচ্ছে এমন সংবাদে মিডিয়া কর্মীরা ছুটে গিয়েছিল। ঘটনার সত্যতা জানতে পেরে ছবি তুলতে গেলে বাংলাভিশনের ক্যামেরাপাসন কামালকে টেনে হিচরে ভিতরে নিয়ে মারধোর করে। এসময় তার ক্যামেরাও ভেঙ্গে ফেলা হয়। সংবাদ পেয়ে ছুটে আসেন সাংবাদিকরা। ছুটে আসেন ভ্রাম্যমান আদালতের একটি টিম।

উদ্ধার করা হয় বিপুল পরিমান মদ। উদ্ধারকৃত মদ তাৎক্ষণিক মাটিতে ফেলে নষ্ট করা হয়। এরপর মাদকের গুদামটিতে সিলগালা করা হয়। এসময় অতিরিক্ত পরিচালকক হাফিজুর রহমানকে অফিসেই পাওয়া যায়। এতে মিডিয়ায় নিন্দার ঝড় উঠে। অতিরিক্ত পরিচালকসহ হামলাকারীদের বিচারের দাবিতে সোচ্চার হয়ে উঠে সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠন। সাংবাদিকরা তাৎক্ষনিক দেখা করেন বিভিাগীয় কমিশনার ও জেলাপ্রশাসকের সাথে। তারা বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখবেন বলে আশ্বাস দেন। আজ ( রোববার) তাকে বদলী করা হল।

সম্পর্কিত সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

ডাসারে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু

মাদারীপুরের ডাসার উপজেলার কাজীবাকাই দক্ষিণ মাইজপাড়া পানিতে পড়ে দুই চাচাতো বোনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১ টার দিকে উপজেলার...