শেবাচিম হাসপাতাল থেকে পালানো করোনা রোগীকে দৌলতখানে উদ্ধার

অবশ্যই পরুন

শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ড থেকে পালিয়ে যাওয়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এক রোগীকে ভৌলার দৌলতখান পাওয়া গেছে। গতকাল শনিবার রাতে উপজেলার কলাপোপা গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়।

 

এর আগে শনিবার দুপুরের দিকে ওই রোগী করোনা ওয়ার্ড থেকে পালিয়ে ভৌলার দৗলতখানে নিজ বাড়িতে চলে যান। ভোলার সিভিল সার্জন রতন কুমার ঢালী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, দুপুর থেকেই করোনা ওয়ার্ডে ওই রোগীকে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে তার সন্ধান চালিয়ে কলাপোপা গ্রামে নিজের বাড়ি থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। এখন ওই বাড়িতেই তাকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

 

এর আগে গত ২১ মে করোনার উপসর্গ নিয়ে শেবাচিম হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হন ওই বৃদ্ধ। ওইদিনই তার নমুনা পরীক্ষার জন্য শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। গত ২২ মে রাতে পিসিআর ল্যাব থেকে দেওয়া রিপোর্টে ওই বৃদ্ধের রিপোর্ট পজেটিভ আসে। রাতেই করোনা ওয়ার্ডে দায়িত্বরতরা বিষয়টি তাকে অবহিত করেন।

 

পরের দিন গতকাল শনিবার দুপুরের দিকে ওই রোগীকে করোনা ওয়ার্ডে তার ওষুধ নিয়ে খুঁজতে যান দায়িত্বরতরা। তখন থেকেই তার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না।

সম্পর্কিত সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

‘বুড়ো কিন্তু বাতিল নই’, চ্যাম্পিয়ন তামিমের পোস্ট

ফুরচুন বরিশালের দল গঠন নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। তামিম ইকবালকে আইকন ক্রিকেটার ঘোষণা করে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। পরে অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিম ও...